একটি ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আয় করা যায় ? – (ইনকাম করার উপায়)

একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট খুলে কিভাবে টাকা আয় করা যায় সেই প্রত্যেক উপায় গুলোর বিষয়ে এই আর্টিকেলে আমি বলবো।

ওয়েবসাইট থেকে আয় (earning from a website) করার ক্ষেত্রে আমাদের কাছে প্রচুর উপায় রয়েছে।

তবে, আপনার তৈরি করা সাইট বা ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম করার ক্ষেত্রে দুটো বিষয়ের গুরুত্ব প্রচুর।

প্রথম বিষয়টি হলো, আপনার ওয়েবসাইটে প্রত্যেক দিন কত ইউনিক ভিসিটর্স আসছে,

এবং দ্বিতীয় বিষয়টি হলো, আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক / ভিসিটর্স কোন উৎস থেকে আসছে।

আপনার ওয়েবসাইটে যদি প্রত্যেক দিন হাজার হাজার unique visitors বিভিন্ন traffic sources যেমন, “Google search“, “social media” বা অন্যান্য search engine থেকে চলে আসছে,

তাহলে অবশই নিচে দেওয়া বিভিন্ন উপায় গুলো ব্যবহার করে নিজের ওয়েবসাইট থেকে আয় করতে পারবেন।

এমনিতে, ওয়েবসাইট থেকে আয় করার উপায় এমনিতে প্রচুর রয়েছে যদিও,

সব থেকে আগে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের traffic / visitors বাড়ানোর বেপারে ধ্যান দিতে হবে।

কারণ, আপনার ওয়েবসাইট হলো আপনার দোকানের মতোই।

যেভাবে একটি দোকানে যত বেশি গ্রাহক চলে আসছে, ততটাই বেশি সেই দোকানের ইনকাম,

ঠিক সেভাবেই, যত বেশি traffic / visitors আপনার ওয়েবসাইটে চলে আসবে,

আপনার কাছে, ততটাই বেশি সুযোগ থাকবে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে “বিজ্ঞাপন (ads)“, “পণ্য (products)” বা অন্যান্য সেবা গুলোকে বিক্রি করার।

আর এর ফলে আপনি প্রচুর ইনকাম করতে পারবেন।

একটি ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায় ?

ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করার উপায় গুলো

যদি আপনি ভাবছেন একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ সাইট বানিয়ে টাকা ইনকাম করার বিষয়ে,

তাহলে, অবশই আপনি নিজের ঘর থেকে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে, এখানে মূল প্রশ্ন এটাই থাকছে যে, “আপনি কি ধরণের ওয়েবসাইট তৈরি করার কথা ভাবছেন“.

বর্তমানে, “WordPress” এর মাধ্যমে কেবল প্রায় ৫০০-১০০০ টাকা খরচ করে আপনি যেকোনো ধরণের ওয়েবসাইট নিজেই তৈরি করতে পারবেন।

YouTube এর মাধ্যমে ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখেই আপনি নানান ধরণের ওয়েবসাইট বানানোর উপায় শিখতে পারবেন।

তাই, যখন কথা আসছে যে, “একটি ওয়েবসাইট খুলে কিভাবে টাকা আয় করা যাবে“, তাহলে এর উত্তর অনেক।

আপনি অবশই একটি blog website তৈরি করে সেখানে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ইনকাম করতে পারবেন,

আবার, একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করে নিজের পণ্য বা সেবা গুলোকে অনলাইনে বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারবেন।

তাই, ওয়েবসাইট বানিয়ে টাকা আয় করার ক্ষেত্রে সর্বপ্রথমে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে আপনি কি ধরণের সাইট তৈরি করতে চাইছেন।

আর সেটার ওপরেই নির্ভর করবে, আপনি আপনার ওয়েবসাইট থেকে কোন উপায়ে ইনকাম করতে পারবেন।

ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করার ১১+ উপায়

চলুন, এখন আমরা সরাসরি নিচে জেনেনেই যে একটি অনলাইন ওয়েবসাইট তৈরি করে আমরা কি কি উপায়ে টাকা ইনকাম করতে পারবো।

  1. Affiliate marketing
  2. Google AdSense
  3. Selling ad space
  4. Sponsored content
  5. Paid reviews
  6. Create / design websites for others
  7. Sell e-book
  8. Selling online courses
  9. Start selling products / services
  10. Image selling website
  11. Sell website traffic
  12. Donations

চলুন এবার প্রত্যেকটি উপায় গুলোর বিষয়ে আমরা বিস্তারিত ভাবে জেনেনেই।

১. Affiliate marketing 

Affiliate marketing“, হলো এমন এক উপায় যেটা ব্যবহার করে আপনি নিজের যেকোনো ওয়েবসাইট থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এই প্রক্রিয়াতে, আপনি বিভিন্ন ই-কমার্স কোম্পানি গুলোর products / services গুলোকে নিজের ওয়েবসাইটে প্রচার করতে হবে।

পণ্য বা সেবা প্রচার করার ক্ষেত্রে, আপনি text/image ads এর মাধ্যমে বা article লিখে সেগুলোকে প্রচার করতে পারবেন।

পণ্যের প্রচারের ক্ষেত্রে আপনাকে সেই কোম্পানির তরফ থেকে একটি বিশেষ এফিলিয়েট লিংক (affiliate link) দেওয়া হবে।

এবং, আপনার affiliate link এর দ্বারা যদি কোনো visitor / user কোনো ধরণের product কিনে থাকেন,

তাহলে সেই বিক্রির থেকে আপনাকেও কিছু পরিমানের টাকা কমিশন হিসেবে দেওয়া হবে।

এভাবে আপনি, এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে নিজের ওয়েবসাইটের বিষয়ের সাথে প্রাসঙ্গিকতা থাকা পণ্য গুলোকে বিক্রি করিয়ে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে, এই মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার লোকেরা মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছেন।

নিজের ওয়েবসাইট থেকে এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা আয় করার ক্ষেত্রে আপনারা কিছু সেরা affiliate network গুলোর সাথে সংযুক্ত হতে পারবেন।

যেমন,

  1. Shareasale.com
  2. Amazon associates  
  3. eBay partner network 
  4. Clickbank.com 

২. Google AdSense 

Google AdSense” হলো যেকোনো ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম করার সব থেকে সোজা তবে লাভজনক উপায়।

কনটেন্ট রিলেটেড ওয়েবসাইট (blogs) গুলোর ক্ষেত্রে এই প্রোগ্রাম ব্যবহার করা হয়।

Google AdSense হলো একটি online advertising platform যেটাকে Google দ্বারা নিয়ে আসা হয়েছিল।

যদি আপনার একটি blog site রয়েছে যেখানেই আপনি video, text, images এই ধরণের কনটেন্ট পাবলিশ করে থাকেন,

তাহলে আপনি Google AdSense এর জন্যে apply করতে পারবেন।

Google দ্বারা আপনারা website / blog site টিকে approve করে দেওয়ার পর,

আপনি এডসেন্স এর মাধ্যমে বিভিন্ন ধরণের বিজ্ঞাপন নিজের ওয়েবসাইটে দেখাতে পারবেন।

আর, যখনি আপনার ওয়েবসাইটের ভিসিটর্সরা এই বিজ্ঞাপন গুলোর ওপরে ক্লিক করবেন, আপনি টাকা পাবেন।

বর্তমানে বিশ্বজুড়ে অসংখক লোকেরা একটি ব্লগ সাইট বানিয়ে কেবল গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন দেখিয়ে প্রত্যেক মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করছেন।

৩. Selling ad space 

আপনার ওয়েবসাইটে যদি প্রত্যেক দিন ভালো পরিমানে visitors/traffic চলে আসছে,

তাহলে অবশই আপনি নিজের ওয়েবসাইটের কিছুটা অংশ বিভিন্ন কোম্পানি গুলোকে বিক্রি করতে পারবেন।

তারপর কোম্পানি গুলো তাদের products / services গুলোর বিজ্ঞাপন সেই কিনে নেওয়া জায়গাতে দেখাবেন।

ওয়েবসাইটের আলাদা আলাদা জায়গা গুলো যেমন, “header area“, “footer area” ইত্যাদি আলাদা আলাদা দামে বিক্রি করতে পারবেন।

তবে মনে রাখবেন, আপনার ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমানে traffic থাকলেই এই মাধ্যমে ইনকাম সম্ভব।

ট্রাফিক ছাড়াও আপনার ওয়েবসাইট কিছুটা জনপ্রিয় হলে আরো ভালো।

৪. Sponsored content 

এই মাধ্যমে অনেক ব্লগার রা প্রচুর টাকা তাদের ব্লগ সাইট থেকে ইনকাম করে থাকেন।

যখন আপনার blog site অনেক জনপ্রিয় হয়ে দাঁড়াবে এবং সেখানে প্রত্যেক দিন হাজার হাজার ট্রাফিক আসতে শুরু হবে,

তখন, নানান কোম্পানি গুলো বা অন্যান্য ব্যক্তিরা তাদের পণ্য, সেবা বা ব্র্যান্ড এর বিষয়ে আপনাকে আপনার ব্লগে আর্টিকেল পাবলিশ করতে বলবেন।

আর এর বিপরীতে, আপনাকে ভালো পরিমানের টাকা দিয়ে দেওয়া হবে।

Sponsored content এর মাধ্যমে কোম্পানির আপনার ব্লগের ভিসিটর্স দের কাছে তাদের পণ্যের প্রচার / মার্কেটিং করেন।

৫. Paid reviews 

বিভিন্ন কোম্পনি রয়েছে যারা নিজেদের সেবা, পণ্য, ওয়েবসাইট, এপস ইত্যাদির জন্যে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটে ভালো ভালো রিভিউ দিতে বলবে।

এবং, যখন আপনি এই ধরণের paid reviews করবেন, তখন কোম্পানি গুলো আপনাকে টাকা দিবে।

পেইড রিভিউ করার ক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন product এর বিষয়ে ভালো ভালো কথা লিখতে হবে।

মূলত আর্টিকেল হিসেবেই product গুলোকে নিজের ওয়েবসাইটে রিভিউ করতে হবে।

তবে, এক্ষেত্রেও আপনার ওয়েবসাইটে অনেক ভালো পরিমানের traffic থাকতে হবে।

৬. Create / design websites for others 

আপনি যদি web designing এর course করেছেন বা আপনি অনেক ভালো করে বিভিন্ন ধরণের ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে জানেন,

তাহলে অবশই অন্যান্য কোম্পানি বা ব্যক্তি দের জন্য ওয়েবসাইট বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে প্রত্যেকটি ব্যবসা অনলাইনে সক্রিয় হয়ে চলেছে।

আর এক্ষেত্রে, তাদের একটি ওয়েবসাইটের প্রয়োজন অবশই হয়ে থাকে।

তাই, আপনি অন্যদের জন্য ওয়েবসাইট বানিয়েও প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

৭. Sell e-book 

আপনার যেকোনো ধরণেরি ওয়েবসাইট হোক না কেন, যদি সেখানে প্রচুর ট্রাফিক আসছে,

তাহলে নিজের তৈরি করা e-book বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারবেন।

বিভিন্ন অনলাইন কোর্স, গল্প, টিউটোরিয়াল ইত্যাদির ই-বুক বানিয়ে নিজের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রি করুন আর ইনকাম করুন।

৮. Selling online courses 

বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটের চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা প্রচুর পরিমানে বৃদ্ধি পেয়েছে।

এবং এর সাথে সাথে ছোট-বড় প্রত্যেকেই নতুন নতুন বিষয়ে শিক্ষা ও জ্ঞান পেয়ে যাওয়ার জন্যে এই ইন্টারনেটের ব্যবহার করেন।

লোকেরা আজ যেকোনো নতুন বিষয়ে শিখে নেওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন অনলাইন কোর্স গুলো করে থাকেন।

আর তাই, যদি আপনার কাছে কিছু বিশেষ বিষয়ে অভিজ্ঞতা, জ্ঞান, দক্ষতা ও নলেজ রয়েছে,

তাহলে আপনি একটি online course website বানিয়ে নিজের জ্ঞান course হিসাবে অনলাইনে বিক্রি করতে পারবেন।

ইন্টারনেটের মাধ্যমে সাধারণ টাকার বিপরীতে লাভজনক কোর্স করতে বর্তমানে প্রায় প্রত্যেকেই উৎসাহিত ও রাজি।

আজ, অনেকেই blogging, video editing, digital marketing এর মতো courses গুলোকে কেবল Rs.১০০/- টাকা নিয়ে শিখিয়ে দিচ্ছেন।

তবে, একজনের জন্যে মাত্র ১০০ টাকা দেওয়াটা কোনো বড় বেপার না।

আর এভাবেই, কমেও ৫০০ জন যদি আপনার কোর্স ১০০ টাকা দিয়ে কিনেন,

তাহলে আপনি কিছু দিনেই ৫০,০০০ ইনকাম করে নিতে পারবেন।

তাই, একটি কোর্স ওয়েবসাইট বানিয়ে নিজের বানানো ভিডিও কোর্স গুলো বিক্রি করুন এবং ইনকাম করুন।

৯. Start selling products / services 

একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট বানিয়ে আপনি নিজের products গুলোকে অনলাইন বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে, ই-কমার্স ওয়েবসাইট গুলোর ব্যবহার এবং জনপ্রিয়তা প্রচুর বৃদ্ধি পেয়েছে।

তাই, আপনিও একটি ভালো পরিকল্পনার সাথে একটি e-commerce product selling website বানিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

১০. Image selling website 

ইন্টারনেটে এরকম অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোতে আপনি আপনার ছবি গুলোকে বিক্রি করতে পারবেন।

তবে, এক্ষেত্রে আপনার তোলা ছবি গুলোর কোয়ালিটি অনেক ভালো মানের হতে হবে।

জেকেও তাদের নিজের ছবি গুলোকে এই image selling website গুলোতে আপলোড করতে পারবেন।

তবে, ছবি গুলোকে আপলোড করার ক্ষেত্রে আপনার একটি একাউন্ট অবশই তৈরি করতে হবে।

যখন আপনার আপলোড করা ছবি গুলোকে সেই ওয়েবসাইট থেকে কোনো ব্যক্তি কিনে নিবেন,

তখন আপনাকে আপনার ভাগ দিয়ে দেওয়া হবে।

তবে আপনি চাইলে, একটি image selling website বানিয়ে সরাসরি নিজের ছবি গুলোকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিক্রি করিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

যেকোনো অনলাইন blog বা website গুলোতে কনটেন্ট পাবলিশ করার ক্ষেত্রে নানান ধরণের images গুলোর প্রয়োজন লোকেদের হয়েই থাকে।

এছাড়া, বিভিন্ন কোম্পানি গুলো তাদের বিজ্ঞাপন, ম্যাগাজিন ইত্যাদির ক্ষেত্রেও ছবি গুলোর ব্যবহার করে থাকে।

১১. Sell website traffic 

যদি আপনার ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমানে traffic/visitors আসছে,

তাহলে আপনি অন্যান্য blog বা website গুলোকে নিজের ওয়েবসাইট থেকে ট্রাফিক দিতে পারবেন।

আর, ট্রাফিক সেন্ড করার বিপরীতে আপনি সেই ওয়েবসাইটের মালিকের থেকে টাকা আদায় করতে পারবেন।

এরকম অনেক নতুন নতুন blogs বা websites রয়েছে যেখানে traffic একেবারেই থাকেনা।

আর, এই ধরণের ওয়েবসাইটের মালিকের সাথে যোগাযোগ করে তাদের সাথে ট্রাফিক নিয়ে চুক্তি করতে পারবেন।

১২. Donations 

অনেক ওয়েবসাইট / ব্লগ এর মালিকেরা নিজের ওয়েবসাইটের মধ্যে ডোনেশন দেয়ার একটি ব্যবস্থা করে রাখেন।

এতে, তাদের ব্লগে আসা ভিসিটর্সরা যাতে কিছু টাকা ডোনেশন হিসেবে ওয়েবসাইটের মালিককে দিতে পারে।

তাই, আপনিও নিজের ওয়েবসাইটে একটি donation link যোগ করে নিজের ভিসিটর্স দের কাছে donation এর জন্যে আর্জি রাখতে পারবেন।

এতে, হাজার হাজার ভিসিটর্স দের মধ্যে যদি কিছুটা ব্যক্তি আপনাকে অনুদান (donation) দিয়ে থাকে,

তাহলেও প্রচুর ইনকাম আপনার হয়ে যাবে।

তাই, donations এর মাধমেও ওয়েবসাইট এর মালিক হিসেবে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, আজকে আমরা জানলাম একটি ওয়েবসাইট থেকে আয় করার উপায় গুলোর বিষয়ে। (How can we earn money from a website).

বর্তমান সময়ে, আপনি একটি সাধারণ ব্লগ সাইট বানিয়ে সেখানে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে প্রচুর ইনকাম করতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন ছাড়াও, একটি ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করার প্রচুর উপায় রয়েছে যেগুলোর বিষয়ে আমি ওপরে বলেছি।

তাই, যদি আমাদের এই আর্টিকেল আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে আর্টিকেলটি শেয়ার অবশই করবেন।

আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে আমাদের কমেন্ট করে অবশই জানাবেন।

 

1 thought on “একটি ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আয় করা যায় ? – (ইনকাম করার উপায়)”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link