১৩+ লাভজনক পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া গুলোর তালিকা

বন্ধুরা আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা সেরা ১৩ টি পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া (wholesale business ideas) গুলোর বিষয়ে জানতে পারবো। আপনারা যদি নিজের হোলসেল ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন, তাহলে এমনিতে প্রচুর লাভজনক হোলসেল ব্যবসার আইডিয়া গুলো রয়েছে, যেগুলোর থেকে যেকোনো একটি আপনি শুরু করতে পারবেন।

পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া
Wholesale business ideas in Bangla.

পাইকারি হিসাবে জিনিস বিক্রি করার ক্ষেত্রে আপনাকে পণ্য গুলোকে অনেক বড় সংখ্যাতে রিটেইলার (retailer) দের কাছে ডিসকাউন্ট (discounted) দামে বিক্রি করতে হয়।

এবার, খুচরা বিক্রেতারা আপনার থেকে কম দামে জিনিস গুলো কিনে নিয়ে লাভের সাথে গ্রাহকের কাছে পণ্য বিক্রি করে থাকে।

Wholesale business ideas বর্তমান সময়ে অধিক লাভ আয় করার একটি সেরা উপায় হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। তবে, আপনি কি ধরণের পণ্যের ব্যবসা করছেন বা আপনার গ্রাহক কারা, সেটার ওপরেই ব্যবসার সফলতা নির্ভর করে থাকে।

মনে রাখবেন, পাইকারি ব্যবসা শুরু করার ক্ষেত্রে আপনাকে প্রচুর টাকা ইনভেস্ট (invest) করতে হয়। কেননা, এই ধরণের ব্যবসাতে আপনাকে অনেক ভারী সংখ্যায় পণ্য গুলো কিনতে হবে।

এছাড়া, এই হোলসেল ব্যবসার ক্ষেত্রে আপনার একটি ভালো suppliers এবং manufactures দের network এর সাথে সংযুক্ত থাকাটা অনেক জরুরি।

এছাড়া, ব্যবসা ভালো করে চালিয়ে নেওয়ার জন্য আপনাকে কিছু বিশেষ বিষয়ে অবশই নজর দিতে হয়, যেমন,

  • সময়ে সময়ে ডেলিভারি দেওয়া
  • ভালো মানের পণ্য (products) হতে হবে।
  • গ্রাহকের সাথে উচিত ব্যবহার।

যখন আপনি কিছু দিন ধরে এই ব্যবসাতে সংযুক্ত থাকবেন, তখন আপনি ধীরে ধীরে একজন অভিজ্ঞ ব্যক্তি হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

পাইকারি ব্যবসা প্রকার গুলো – (Types of Wholesale business)

পাইকারি ব্যবসা আবার আলাদা ধরণের বা প্রকারের থাকতে পারে।

Merchant Wholesaler

এটা সব থেকে সাধারণ (common) ধরণের পাইকারি ব্যবসা যেটা বেশিরভাগ লোকেরা করে থাকেন।

Merchant wholesalers এর ক্ষেত্রে, products গুলোকে অনেক বড় পরিমানে (larger volumes ) কেনা হয় এবং সেগুলোকে কিছুটা অধিক লাভ রেখে ছোট ছোট পরিমাণে আবার বিক্রি করা হয়।

Broker

Brokers রা যেগুলো products বিক্রি করে থাকেন সেগুলো তারা নিজেরা কিনে থাকেননা।

এরা কেবল wholesale operator এবং customers বা clients এর মধ্যস্থতাকারী (intermediary) হিসেবে কাজ করে থাকে।

Distributor

পণ্য তৈরি করা কোম্পানি বা উত্পাদকরা তাদের পণ্য গুলোকে বাজারে বিক্রি করানোর ক্ষেত্রে বা ছড়ানোর ক্ষেত্রে এই বিতরণকারী (distributers) দের কাছে চলে আসেন কিছু লাভজনক কিছু লাভজনক পাইকারি লেনদেন তৈরি করার উদ্দেশ্যে।

লাভজনক পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া গুলোর তালিকা

একটি wholesale enterprise হলো এমন একটি ব্যবসা যেখানে বিভিন্ন suppliers এর মাধ্যমে products গুলো চলে আসে।

যখন যেকোনো পণ্যের প্রস্তুতকারক বা উত্পাদক দ্বারা একজন পাইকারি ব্যবসায়ীকে প্রচুর কম খরচে পণ্য গুলো বিক্রি করা হয়।

এভাবেই, পাইকারি ব্যবসায়ীরা (wholesalers) উত্পাদক (manufacturers) দের থেকে products গুলো কম দামে কিনে থাকেন, এবং সেগুলোকে আবার অধিক দামে distributors এবং retail businesses কাছে বিক্রি করে থাকেন।

তারা অনেক বেশি মার্জিন (margin) এর সাথে পণ্য গুলো বিক্রি করে থাকেন, তাই এদের ইনকাম কিন্তু প্রচুর।

আর এই ব্যবসাতে অধিক পরিমানে থাকা লাভ এর সম্ভাবনার ফলেই বর্তমান সময়ে লোকেরা পাইকারি ব্যবসা শুরু করার ক্ষেত্রে অধিক আগ্রহী হয়ে পড়েছেন।

চলুন, এবার নিচে আমরা সরাসরি সেরা লাভজনক পাইকারি বিজনেস আইডিয়াজ গুলোর বিষয়ে জেনেনেই।

  ১. Furniture business

এখনের সময়ে furniture business দারুন এবং অধিক লাভজনক ব্যবসা হিসেবে দেখা যাচ্ছে।

কেননা, যেকোনো ঘরের ক্ষেত্রেই ফার্নিচার এর জিনিস কিন্তু লাগবেই, এবং যদি আপনি ভালো কোয়ালিটির ফার্নিচার আইটেম গুলো বিক্রি করে থাকেন তাহলে প্রচুর লাভ আয় করতে পারবেন।

আজকাল কেবল কাঠ ছাড়াও বিভিন্ন ধরণের প্লাই ইত্যাদি দিয়ে তৈরি হালকা ফার্নিচার গুলো লোকেরা পছন্দ করে থাকেন।

তাই, আপনার ব্যবসার জন্য কোনটা অধিক লাভজনক হবে সেটার ওপরে নজর রেখে কাজ শুরু করুন।

২. Stationery Business

Stationery item বলতে অনেক আলাদা আলাদা ধরণের products নিয়ে আপনি কাজ করতে পারবেন।

letterheads, business cards, paper, diary, clips, files, notebooks, staplers, pens, pencils, envelopes, notepads, presentation folders এবং company brochures ইত্যাদি বিভিন্ন ধরণের items গুলো এই ব্যবসাতে ধরা যেতে পারে।

এই পাইকারি ব্যবসাতে অধিক বেশি টাকা ইনভেস্ট করতে হবেনা এবং একটি টার্গেটেড ব্যবসা হওয়ার ক্ষেত্রে ব্যবসাতে লাভ আয় করার সম্ভাবনা প্রচুর।

৩. চিনির পাইকারি বিজনেস

চিনির পাইকারি ব্যবসাতেও প্রচুর মুনাফা আয় করতে পারবেন, কেননা এটা এমন এক ধরণের জিনিস যেটা দৈনন্দিন জীবনে প্রত্যেক দিন ব্যবহার হয়ে থাকে।

তবে এর জন্য আপনাকে এমন কিছু ভালো ভালো সাপ্লায়ার দের সাথে যোগাযোগ করতে হবে যাদের থেকে ভালো মানের চিনি কম দামে কিনতে পারবেন।

৪. Textile Business

Fabric yarns, home furnishing, readymade garments, footwear, accessories ইত্যাদি বিভিন্ন items গুলো এই textile industry তে রয়েছে।

আপনি সাধারণ গার্মেন্ট কাপড়ের পাইকারি ব্যবসা থেকে শুরু করে অন্যান্য যেকোনো ধরণের কাপড়ের পাইকারি ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

বলা হয় যে, কাপড়ের যেকোনো ধরণের ব্যবসাতেই অধিক লাভ আয় করা সম্ভব।

৫. চানাচুর এর পাইকারি বিজনেস

আমরা বিভিন্ন ধরণের আলাদা আলাদা রকমের চানাচুর গুলো খেতে অধিক পছন্দ করে থাকি।

এক্ষেত্রে, আপনি চাইলে চানাচুর এর ভালো ভালো suppliers এবং manufacturers দের সাথে যোগাযোগ করে এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

৬. খাওয়ার জলের ব্যবসা

গরমের দিন হোক বা ঠান্ডার দিন, খাওয়ার জল প্রত্যেক দোকানে দোকানে নিয়মিত বিক্রি হয়েই থাকে।

তাই, একটি লাভজনক পাইকারি ব্যবসা হিসেবে খাওয়ার জলের ব্যবসা কিন্তু দারুন এবং প্রচুর লাভজনক।

বর্তমান সময়ে বিভিন্ন আলাদা আলাদা কোম্পানির খাওয়ার জল বাজারে বিক্রি হচ্ছে।

তাই, আপনি নিজের পছন্দের এবং অধিক মার্জিন আয় করার সুযোগ দেওয়া কোম্পানি গুলোর সাথে ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

৭. Soft toys wholesale

পুতুল এর ব্যবসা ফট করে আমাদের চোখে পড়েনা যদিও পাইকারি ব্যবসা হিসেবে এই ব্যবসাতে প্রচুর লাভ আয় করতে পারবেন।

আপনাকে মূলত পুতুল বানানোর ভালো ভালো manufacturers দের সাথে যোগাযোগ করে একসাথে প্রচুর পরিমানে পুতুল এর স্টক রাখতে হবে।

এবার, ছোট দোকান বা ব্যবসা গুলোকে আপনি অধিক দামে খুচরো হিসেবে পুতুল সাপ্লাই করতে করবেন।

৮. Plastic products

Plastic products বলতে হাজার হাজার products বা items গুলো রয়েছে যেগুলোর পাইকারি ব্যবসা আমরা শুরু করতে পারি।

তবে, আপনাকে আগে ভালো করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে কোন item / products গুলোর wholesale business আপনি করবেন।

আলাদা আলাদা plastic item বা product এর ওপরে ব্যবসাতে আপনার বিনিয়োগ এর পরিমান নির্ভর করবে।

৯. Gift item products

আপনি কেবল gift items গুলোর ওপরেই নিজের ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

হাজার হাজার রকমের gift items গুলো রয়েছে এবং উপলক্ষ্য হিসেবে গিফট গুলো আলাদা আলাদা হয়ে থাকে।

তাই, একটি list তৈরি করুন যে কি কি gift items গুলো আপনি নিজের ব্যবসাতে রাখছেন।

এছাড়া, কোথায় আপনি অনেক কম দামে products গুলো কিনতে পাবেন সেটা নিয়েও আপনাকে দেখতে হবে।

১০. Wholesale food items

Wholesale food business এর মধ্যে dairy products, jam, jelly, beverages, snacks ইত্যাদি এই ধরণের products গুলোকে ধরা যেতে পারে।

এই ধরণের খাওয়ার জিনিস গুলো প্রত্যেক দিন আমাদের ঘরে ব্যবহার হয়ে থাকে, তাই এগুলোর চাহিদা বাজারে প্রচুর।

সঠিক পরিকল্পনার সাথে এই আইটেম গুলো নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারলে লাভ হওয়ার সম্ভাবনা প্রচুর থাকছে।

আপনাকে একবারে একসাথে অধিক products stock করতে হবে এবং লাভের সাথে retailers দের বিক্রি করতে হবে।

১১. বাচ্চাদের খেলনা

দেখতে অনেক ছোট লাগলেও, বাচ্চাদের খেলনার চাহিদা কিন্তু সব সময় প্রচুর রয়েছে।

তাই, যদি আপনি একটি আলাদা রকমের পণ্যের সাথে ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন যেখানে লাভের পরিমাণ অনেক বেশি থেকে থাকে, তাহলে বাচ্চাদের খেলনার পাইকারি ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

১২. Electrical appliances

ইলেক্ট্রিক এর প্রচুর আলাদা আলাদা রকমের উপকরণ বা জিনিস ইত্যাদি রয়েছে যেগুলো নিয়ে আপনি ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনি বাজারে গিয়ে দেখুন এবং সার্ভে করুন যে কোন ইলেকট্রিকাল উপকরণ গুলোর চাহিদা বেশি।

এছাড়া, কোথায় আপনি একেবারে কম দামে উপকরণ গুলো কিনতে পাবেন সেটা দেখুন।

LED light, Fan এর কন্ডাকটর ইত্যাদি হাজার হাজার রকমের আলাদা আলাদা ইলেকট্রিকাল উপকরণ গুলো রয়েছে।

১৩. চপ্পলের ব্যবসা

অবশই, আপনি চাইলে চপ্পলের পাইকারি ব্যবসা শুরু করতে পারবেন যেখানে প্রচুর মুনাফা আয় করা সম্ভব।

দুটা বা চপ্পল এর চাহিদা বছরের যেকোনো সময় থেকে থাকে, তাই এই পণ্যের চাহিদা সবসময় থাকছে।

সরাসরি manufacturer থেকে তাদের তৈরি করা চপ্পল গুলো কম দামে কিনে আনুন এবং ছোট-বড় দোকানে দোকানে সাপ্লাই দিন।

১৪. Kitchen item wholesale

Kitchen items বলতে আমাদের ঘরের রান্নাঘরে থাকা প্রত্যেকটি জিনিস গুলোকে বুঝানো হয়।

রান্নাঘরে প্রয়োজন হওয়া প্রত্যেকটি জিনিস গুলোর চাহিদা বাজারে প্রচুর রয়েছে।

এছাড়া, এটা অনেক লাভজনক একটি ব্যবসা যদি আপনি সঠিক পরিকল্পনার সাথে ব্যবসাটি করতে পারেন।

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা কিছু সেরা পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া গুলো জানতে পারলাম।

আমাদের আজকের আর্টিকেল যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে অবশই আর্টিকেলটি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন।

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানিয়ে দিবেন।

আশা করছি আমাদের আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের কাজে অবশই লাগবে।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link