প্রেমিকার মন জয় করার সেরা ১০টি উপায়

প্রেমিকার মন জয় করার উপায়: কোনো একজন বিজ্ঞজন মন্তব্য করেছিলেন, ‘কে বলেছে, যে আপনাকে মহিলাদের বুঝতে হবে, আপনাকে কেবল তাদের ভালবাসলেই চলবে!’ হ্যাঁ, তিনি নিশ্চিত একজন জ্ঞানী মানুষ ছিলেন। 

প্রেমিকার মন জয় করার উপায়
কিভাবে প্রেমিকার মন জয় করা যাবে ?

কিন্তু, শুধু ভালবাসলেই যে আপনি আপনার সেই ভালোবাসার মেয়েটিকে আপনাআপনি পেয়ে যাবেন, তা কিন্তু একেবারেই নয়! 

আপনাকে সবার প্রথমে আপনার প্রেমিকাটির মন জয় করতে হবে। 

আর, তার হৃদয় জিততে গেলে আপনাকে সত্যিই তাকে তার মনের ভিতর থেকেই প্রভাবিত করতে হবে। 

এর জন্যে আমরা আপনাকে সাহায্য করবো আমাদের এই আর্টিকেলের সাহায্যে। 

আমাদের এই আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করবো, প্রেমিকার মন জয়ের সেরা ১০টি উপায় সম্পর্কে 

একজন মহিলার হৃদয় জয় করার টিপস নিয়ে আলোচনা করার আগে, আসুন আমরা আপনার সাজসজ্জার সম্পর্কে একটু আলোচনা করে নিই। 

সচেতনভাবে সাজসজ্জা করা, একজন মহিলার হৃদয় জয় করার সরাসরি উপায় না হলেও, এটা কিন্তু একটা মৌলিক প্রয়োজন। 

তাই, আপনাকে অবশ্যই আপনার চুলের যত্ন নিতে হবে, ভালো সুগন্ধি ও পরিপাটি সাজপোষাক করতে হবে। 

আপনাকে এর জন্যে মোটেও কোনো টপ হ্যাট, ভালো স্যুট-টাই কিংবা কোট-প্যান্ট পরতে হবে না। 

এক্ষেত্রে, কাচাধোয়া, ইস্ত্রি করা জামাকাপড় পরলেই চলবে। 

তবে, পোশাকে দাগের দিকে লক্ষ্য রাখুন কিংবা চুল কাটা বা গ্রূমিং করার পর নিজেকে পরিপাটি রাখুন। 

প্রেমিকার মন জয় করার উপায় – (সেরা ১০টি)

চলুন, এইবার জানা যাক, একজন মহিলার হৃদয় জয় করার সেরা কয়েকটি উপায়ের সম্বন্ধে –

১. সৌজন্যবোধ দেখান:

মেয়েরা যতই দেখাক যে, তারা নিজেদের যত্ন নিতে পারে, তবুও মনে-মনে তারা সবাই চাই যে, তাদের যত্ন নেওয়ার একজন মানুষ থাকুক। 

এমন কোন মেয়ে খুঁজে পাওয়া মুস্কিল, যারা চায় না তাদের জন্যে কোনো মানুষ গাড়ির দরজা খুলে দিক, চেয়ার এগিয়ে দিক কিংবা তার শপিং ব্যাগ ক্যারি করুক। 

তাই, যদি আপনি কোনো নারীর মন জয় করতে চান, তাহলে এই বেসিক শিভ্যালরি বা সৌজন্য প্রকাশের দিকে নজর দিতে পারেন।

২. প্রথমে তার বন্ধু হন:

প্রেমিকার মন জয় করার সফলতম রাস্তা হল তার বন্ধু হয়ে ওঠা। 

একজন নারী তার জীবনসঙ্গী হিসেবে এমন মানুষকেই পছন্দ করে, যার সাথে সে বন্ধুর মতো মিশতে পারে। 

কেউই গোমড়ামুখো পার্টনার একেবারেই পছন্দ করে না। 

এই কারণে, আপনার প্রেমিকার মন জেতার জন্যে তার মনের হদিশ রাখুন। 

সে কি করতে ভালোবাসে, খেতে ভালোবাসে, রাগ করলে কি করে কিংবা তার ছোটোখাটো পছন্দ-অপছন্দের বিষয়ে খোঁজ রাখুন। 

কারণ, সবসময় মনে রাখবেন যে, কাউকে ভালোবাসতে গেলে প্রথমে তার বন্ধু হয়ে ওঠাটা একান্তই জরুরি। 

আর, প্রেম-ভালোবাসা কিন্তু শুরুই হয় বন্ধুত্বের হাত ধরে! 

৩. চোখে-চোখ রেখে কথা বলুন:

মেয়েরা চোখে-চোখ রেখে কথা বলা মানুষদের প্রেমেই বেশি পড়ে। 

চোখ হল মনের আয়না- তাই আপনার প্রিয় নারীটার চোখে চোখ রেখে, মুখে হাসি নিয়ে কথা বলুন। 

তবে, এমনভাবেও হাসবেন না, যাতে আপনাকে ক্যাবলার মতো দেখতে লাগে। 

কিন্তু, চোখের দিকে তাকিয়ে, মিষ্টি হেসে আপনার সামনে থাকা মানুষটিকে বুঝিয়ে দিন যে, আপনি তার ব্যাপারে কতটা যত্নশীল! 

আর, চোখ মিলিয়ে কথা বলাটা কিন্তু আত্মবিশ্বাসের প্রতীক- আর, বেশিরভাগ নারীই ব্যক্তিত্ববান মানুষকে পছন্দ করে থাকে।

৪. তার সম্পর্কে আপনার মনের কথা বলুন:

সেই বিশেষ নারীটির প্রতি আপনার ভালোবাসার প্রকাশ অবশ্যই করুন। 

এক্ষেত্রে, আপনার অনুভূতি তার সামনে সৎভাবে প্রকাশ করাই সবথেকে ভালো কাজ হবে। 

মেয়েরা হাল্কা ড্রামা পছন্দ করলেও, প্রেমের ব্যাপারে অনেস্ট কনফেশনটাকেই তারা বেশি গুরুত্ব দেয়। 

তাই, হোয়াটস্যাপ টেক্সট করুন কিংবা ফোন কল, তাকে আপনার মনের অনুভূতিগুলো খুলে বলুন। 

আপনি তাকে নম্রভাবে, তার সারাদিন কেমন কাটলো জিজ্ঞেস করতে পারেন কিংবা গুড মর্নিং উইশও করতে পারেন, আসলে ছোট-ছোট কেয়ারিং জেশ্চারগুলোই মেয়েদের মন জয় করার বেস্ট উপায়গুলোর মধ্যে একটি।

৫. প্রকৃত ও নিরপেক্ষভাবে তার প্রশংসা করুন:

যেকোনোও প্রেমিকাই তার ভালোবাসার মানুষের কাছ থেকে প্রশংসা শুনতে ভালোবাসে। 

কিন্তু, প্রশংসা যদি কৃত্রিম শোনায়, তাহলে কিন্তু কেস পুরো গুবলেট হয়ে যাবে। 

সেক্ষেত্রে, মন জয় করার বদলে, মুখ দেখাদেখিও কিন্তু বন্ধ হয়ে যেতে পারে! 

তাই, আপনাকে জেনুইনভাবে তার প্রশংসা করতে হবে। 

আপনি যদি সত্যিই তার পোশাক বা মেকআপ পছন্দ করেন, তবেই কিন্তু প্রশংসা করুন, নাহলে এড়িয়ে যান। 

এতে না হলে, তার হাসি কিংবা তার চোখের প্রশংসাও করতে পারেন। 

কিংবা, তাকে বলতে পারেন যে, সে অন্য স্টাইল ট্রাই করলে, তাকে আরও সুন্দর লাগতে পারে। 

আসলে, মেয়েরা সবসময়েই সৎ প্রশংসাই আশা করে।

৬. মন দিয়ে তার কথা শুনুন:

আপনি যে নারীর প্রতি আগ্রহী ও আপনি যাকে আকৃষ্ট করতে চান, প্রথমে তার সমস্ত কথা মন দিয়ে শুনুন। 

তাকে প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করে তাকে বোঝান যে, আপনি তার সাথে কথোপকথনে আগ্রহী। 

আপনি যদি কথার খেই হারিয়ে ফেলেন, তবে আপনি আপনার কিংবা আপনার সম্পর্কের সমস্যাগুলোর ব্যাপারে জিজ্ঞেস করতে পারেন। 

এতে, আপনি আপনাদের মধ্যেকার বিভ্রান্তিকর বিষয়গুলোর সমাধান করতে পারবেন।

৭. তাকে স্পেশাল ফীল করান:

আপনি যখন আপনার প্রেমিকাকে স্পেশাল ফীল করাতে শিখে যাবেন, তখন ইতিমধ্যেই ধরে নিন আপনি তাকে অর্জন করে ফেলেছেন। 

আপনার বিশেষ নারীটিকে স্পেশাল ফীল করানোর জন্যে আপনাকে পৃথিবীর বিশাল ধনী ব্যক্তি হতে হবে না। 

এর জন্যে আপনাকে তার প্রতি একটু মনোযোগী ও যত্নশীল হতে হবে। 

ধরুন, আপনার প্রেমিকা একটা হার্ড ওয়ার্কিং ডের থেকে খুব টায়ার্ড হয়ে বাড়ি ফিরলো, তো আপনি তার জন্যে তার প্রিয় মিল অর্ডার করে দিলেন কিংবা গ্রোসারি শপিং-এর সময় তার গ্রোসারি ব্যাগটা বয়ে দিলেন বা উইকেন্ড ডেটে তার জন্যে একটা ফ্লাওয়ার বুকে নিয়ে গেলেন। 

এই ছোটছোট কাজের মাধ্যমেই তাকে স্পেশাল ফীল করানো সম্ভব।

৮. আত্মবিশ্বাস ধরে রাখুন:

খুব বেশি কথা বলার দরকার না পড়লেও, মনের ভাব স্পষ্টভাবে প্রকাশ করাটা সব মেয়েরাই খুব বেশি পছন্দ করে। 

তাই, যখনই কথা বলবেন, চেষ্টা করবেন আত্মবিশ্বাসের সাথে বলার। 

কারণ, সকলেই আত্মবিশ্বাসী মানুষকে ভালোবাসে, বিশেষ করে নারীরা। 

শুধু নিশ্চিত করুন যে, কথা বলার সময়ে আপনি এমন কিছু বলবেন না, যাতে তার কাছে ভুল বার্তা পৌঁছোয়।

৯. সবাইকে সম্মান করুন:

আপনি যদি আপনার প্রেমিকার মন জয় করতে চান, তাহলে শ্রদ্ধাশীল হওয়াটাও একান্তই প্রয়োজনীয়। 

শুধুমাত্র প্রেমিকার সাথেই নয়, বরং চেষ্টা করুন সকলেই সাথেই সম্মানের সাথে আচরণ করতে। 

কারণ, যদি সে আপনাকে অন্যদের সাথে খারাপ আচরণ করতে দেখে, তাহলে সে আপনার সম্পর্কে বিরূপ মনোভাব পোষণ করতে পারে। 

এমনকি, আপনাকে ভণ্ডও মনে করতে পারে। 

এই কারণেই সম্মান আপনার জন্য একটা সর্বজনীন বিষয় হওয়া উচিত।

১০. সম্মতিসহ শারীরিক স্পর্শ করুন:

শারীরিক স্পর্শ প্রতিটি সম্পর্কেরই একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ। 

গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, কৌশলগত স্পর্শ প্রাপ্তবয়স্কদের রোমান্টিক সম্পর্ককে আরও গাঢ় করে তোলে।

আপনার প্রেমিকার মন জয় করার জন্যে, তাকে কীভাবে, কখন ও কোথায় স্পর্শ করলে সে খুশি হবে, তা জানতে শিখুন। 

আপনারা যখন গভীর কথোপকথন করবেন, তখন তার কানের পিছনে কিছু চুলকে হঠাৎ করে সরিয়ে দিতে পারেন কিংবা হাঁটার সময়ে তার পিঠে আলতোভাবে হাত রাখতে পারেন। 

কিন্তু, মনে রাখবেন যে, শারীরিক স্পর্শ সবসময় কামনাময় হতে হবে, তা কিন্তু নয়।

স্নেহ ভরেও মানুষকে স্পর্শ করা যায়!

এক্সট্রা টিপস:

উপরের উপায়গুলোকে বাদ দিলেও, এমন অনেক উপায় রয়েছে যার সাহায্যে আপনি নিমেষের মধ্যেই আপনার প্রেমিকার মন জিতে নিতে পারেন-

১. তাকে তার প্রিয় ডিশটা রান্না করে খাওয়াতে পারেন অথবা কোনো সারপ্রাইস ডেটে নিয়ে যেতে পারেন। 

২. তার হবিগুলো সম্পর্কে আগ্রহ দেখতে পারেন। ধরুন, আপনার গার্লফ্রেন্ড যদি নানা ধরণের ফ্লেভার্ড হারবাল টি পছন্দ করে, তাহলে আপনি তাকে সেরকম কোনো স্পেশাল টি ব্যাগ গিফট করতে পারেন। 

৩. আপনি তার বন্ধুদের সামনে তার সাথে ভালো ব্যবহার করেও কিন্তু, তার ও তার ফ্রেন্ডদের মনও জয় করে নিতে পারেন। 

৪. তাকে অনেক বেশি স্পেশাল ফীল করতে চাইলে, মাঝে মাঝে চিঠি লিখের নিজের ভালোবাসার কথা এক্সপ্রেস করুন। চিঠি লেখার ব্যাপারটা কিন্তু বেশ রোম্যান্টিক। 

৫. একজন প্রেমিকার মন জয় করার জন্যে, আমাদের তাদের কাছে সৎ থাকাটাও জরুরি। তাই, আপনি যদি আপনার সমস্ত পাস্ট রিলেশনশিপ কিংবা আপনার কোনো গোপনীয় কথা তার সাথে শেয়ার করেন, তবে সে আপনাকে বিশ্বাস করবে এবং আপনাকে তার সবটুকু দিয়ে ভালোবাসবে। 

৬. আপনি তাকে স্পেশাল ফীল করার জন্যে একটা লাক্সারি স্পায়ের প্যাকেজও গিফ্ট করতে পারেন। এছাড়াও, তাকে কোনো কাস্টোমাইজেড গিফ্টও দিতে পারেন।     

পরিশেষে:

“বি ইয়োরসেল্ফ”-কথাটা কঠিন ও বিষয়ভিত্তিক উক্তি হলেও, আসলে আপনার প্রেমিকার মন জয় করার জন্যে আপনার নিজের ব্যক্তিত্বই যথেষ্ট।

কারণ, আপনি যেরকম মানুষ, সেই অনুযায়ীই আপনার প্রেমিকা আপনাকে ভালোবাসার মানুষ হিসেবে মেনে নিয়েছে। 

তাই, আপনি যদি চিরকালের জন্য আপনার প্রেমিকার হৃদয় জয় করতে চান, তবে কোনোভাবেই আলাদা ব্যক্তিত্বের মুখোশ পরবেন না। 

যা আপনার জীবনে নেই, এমন জিনিস সম্পর্কে মিথ্যা কথা একেবারেই বলবেন না। 

আপনার সীমাবদ্ধতা মেনে নেওয়াটা মোটেও লজ্জার বিষয় নয়। 

আর, এন্ড অফ দ্য ডে, যে থাকার সে আপনার সাথে জীবনভরই থেকে যাবে- তাই নিজের থেকে যতটুকু এফোর্ট দেওয়ার, ততটুকুই দিন, আর বাকিটা ভাগ্যের হাতেই ছেড়ে দিন!

আমাদের আজকের প্রেমিকার হৃদয় জেতার উপায় নিয়ে লেখা আর্টিকেলটি এখানেই শেষ হল। 

আজকে আমরা বলা এই প্রেমিকার মন জয় করার উপায় গুলো পছন্দ হলে, অবশ্যই তা কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।   

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top
Copy link