মেয়েদের প্রেমে পড়ার লক্ষণ গুলো কি কি হতে পারে ? (সেরা ৬ টি)

আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা বুঝতে চেষ্টা করবো, মেয়েদের প্রেমে পড়ার লক্ষণ গুলোর বিষয়ে

মানে, আপনি কিভাবে বুঝতে পারবেন যে কোনো মেয়ে আপনার প্রেমে পড়েছে কি না।

দেখুন, এমনিতে মেয়েদের মনের কথা কিন্তু বুঝা এতটা সোজা কাজ না, তাই নিচে যেই লক্ষন গুলোর বিষয়ে আমরা বলতে চলেছি সেগুলো যে ১০০% প্রেমে পড়ারই লক্ষণ সেটা আমরা বলছিনা।

তবে, মেয়েদের মধ্যে কিছু পরিবর্তন, কথা বলার ধরণ বা অন্যান্য ভাব ইত্যাদি গুলোর মধ্যে পরিবর্তন দেখা দিতে পারে যদি সে আপনার প্রেমে পড়েছেন, আর সেই বিষয় নিয়েই আমরা চর্চা করছি।

                       প্রেমে পড়া বারণ

                      কারণে অকারণ,

      আঙুলে আঙুল রাখলেও হাত ধরা বারণ। 

এই গানটা কম বেশি প্রায় সবারই শোনা। প্রেমে পড়া বারণ, বললেই তো আর মন শুনবে না, প্রতিটা মুহুর্তে সে একজন সঙ্গী খোঁজে, হয়তো সে সঙ্গী তার দীর্ঘ পথ চলার সাথী নয়, কোনো এক দুর্ঘটনা তাদের আলাদা করে দিতেই পারে।

আবার হয়তো সেই সঙ্গী কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সব বিপদে পাশে দাঁড়াবে।

পাশে দাঁড়ানোর, মন খুলে কথা বলার, ভালোবাসার সঙ্গী সবাই খোঁজে। কেউ হয়তো নিজের ভালোবাসার প্রকাশ খুব সুন্দর ভাবে করতে পারে, আবার কেউ পারে না।

কিন্তু ভালোবাসতে সবাই পারে। ভারোবাসা হল একটি বিশেষ মানুষের প্রতি বিশেষ অনুরাগ, আকর্ষণ, তাকে পেতে চাওয়ার ব্যাকুলতা।

পাঠক হয়তো পড়তে পড়তে ভাবছেন, “আমার জীবনে আর ভালোবাসার মানুষ আসবে না, বা আমাকে কে ভালোবাসবে, হয়তো বা যে ছেড়ে গেছে তার মতো আর কি কাউকে পাব ?”

এইসব অনেক প্রশ্ন, অনেকদিনের জমে থাকা স্মৃতি আপনার মনে ঢেউ দিয়ে যায়।

কিন্তু এত ভাবনা চিন্তার মাঝখানে আপনি হয়তো ভুলেই যান রোজ কত লোকের সঙ্গে আপনার কথা হয়, দেখা হয়, সেই মহিলা হয়তো আপনার অফিসের সহকর্মী, বা আপনার বান্ধবী।

আপনি হয়তো তার সঙ্গে সময় কাটান, কথাও হয় কিন্তু আপনি বুঝতেই পারেন না ভিতরে ভিতরে মেয়েটি আপনাকে পছন্দ করে।

আপনাকে নিজের ভালোবাসার মায়া জালে বাঁধতে চায়, কিন্তু আপনি তা বুঝতে পারেন না আর বাকি সাধারন মানুষের মতো তার সঙ্গে মেশেন, কথা বলেন।

এই রকম পরিস্থিতিতে কিভাবে বুঝবেন কে আপনাকে ভালোবাসে ? যে মেয়ে আপনাকে ভালোবাসে আপনার প্রতি তার লক্ষণ গুলোই বা কি কি ? 

তাহলে আজকের লেখাটা আপনার জন্যই। আশা করছি আপনার মন জেগে ওঠা সব প্রশ্নের উত্তর আজকের লেখায় পাবেন।

মেয়েদের প্রেমে পড়ার লক্ষণ গুলো কি কি ? (সেরা তালিকা)

মেয়েদের প্রেমে পড়ার লক্ষণ
কিভাবে বুঝবেন মেয়েটি আপনার প্রেমে পড়েছে কি না ?

তাহলে চলুন বন্ধুরা, নিচে আমরা সেরা কিছু লক্ষণ গুলোর বিষয়ে জেনেনেই যেগুলো একটি মেয়ের মধ্যে দেখা দিতে পারে যদি সে আপনার প্রেমে পরে থাকে।

১| মেয়েটির চোখের চাহনি লক্ষ করতে পারেন :-

চোখ হল মনের আয়না। আপনার মনের ভাব আপনার চোখে ফুটে ওঠে। আপনার ভালো লাগা, ভালো না লাগা, পছন্দ, অপছন্দ, রাগ, অভিমান, সব কিছুই প্রকাশ পায় চোখে।

আপনার যদি মনে হয়ে থাকে, কোনো মেয়ে আপনার প্রতি আকৃষ্ট হয়েছে, বা আপনাকে পছন্দ করছে, তাহলে তার চোখ দুটোকে লক্ষ করতে পারেন।

সে কি বারে বারে আপনার দিকে চেয়ে থাকে ? কারনে অকারণে আপনাকে লক্ষ্য করে ? সুযোগ পেলেই অপলক দৃষ্টিতে আপনাকে দেখে ?

অন্যান্য অনেক ব্যক্তির উপস্থিতি সত্ত্বেও আপনার থেকে তার চোখ সরতে চায় না।

তাহলে বুঝতে হবে মেয়েটি মনে মনে আপনাকে পছন্দ করছে।

সে নিজের চাহনি দিয়ে যতটা সময় আপনাকে অনুভব করতে পারে তার চেষ্টা করছে, আপনাকে বারে বারে দেখা, বা আপনার প্রতি অপলক দৃষ্টি আপনাকে সংকেত দিচ্ছে।

ভালোবাসায় চোখের ভাষা বুঝতে পারলেই মনের ভাষা বুঝে নেওয়া যায়।

তাই এই লক্ষণ বা ইঙ্গিত গুলি যদি আপনার পরিচিত কোনো মেয়ে  আপনার প্রতি করে থাকে, তাহলে হতে পারে সে আপনাকে ভালোবাসতে চাইছে। 

২| মেয়েটির আচরণের পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারেন :-

যে মেয়েটি আপনার দিকে অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকে, আপনাকে সময় পেলেই দেখে তার শুধু চোখের চাহনির যে পরিবর্তন শুধু সেইটুকু লক্ষ্য করলে চলবে না। মেয়েটির আচরণকেও লক্ষ্য করতে হবে।

আপনার সঙ্গে তার আচরণ কেমন সেটাও জানা দরকার।

সে কি সুযোগ খোঁজে আপনার কাছে যাবার ? ধরা যাক সে হয়তো আপনার কলেজের বান্ধবী।

আপনি যদি লক্ষ্য করে থাকেন বা লক্ষ্য করে দেখবেন সে আপনার সঙ্গে অকারণে কথা বলতে চাইছে, বারবার আপনার সামনে উপস্থিত হচ্ছে বা হওয়ার চেষ্টা করছে কি না।

আপনি যদি তার সঙ্গে সোস্যাল মিডিয়াতে যুক্ত থাকেন তাহলে দেখবেন, সে আপনাকে নিজে থেকে বার্তা পাঠাচ্ছে।

আপনার ছবি, স্ট্যাটাসে মনগ্রাহী, সুন্দর সুন্দর মন্তব্য করছে। আপনার ছবিতে রিয়াক্ট করছে। আবার আপনাকে আলাদা করে নোটস দিচ্ছে, বা নিজে থেকেই আপনাকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসছে।

অনেকেই বলতে পারেন ভালো বন্ধুত্বে তো এগুলো হতেই পারে, মনে রাখতে হবে ভালো বন্ধুত্ব আর ভালোবাসা কখনো এক নয়।

বন্ধুত্বে কাছে পেতে চাওয়া এবং নিজের করে রাখার অনুভূতি থাকে না।

ভালোবাসায় ভালোবাসার মানুষটার ওপর একটা অলিখিত অধিকার থাকে।

তাকে ভালোবাসায় বেঁধে রাখার ক্ষমতা থাকে যা বন্ধুত্বে থাকে না।

তাই কোনটা বন্ধুত্ব আর কোনটা ভালোবাসা তা আচরনে বোঝাই যায়। 

আবার হয়তো দেখলেন সে আপনার জন্য বাসস্ট্যান্ডে বা রেল স্টেশনে অপেক্ষা করছে, অন্য কোনো মেয়ে বান্ধবী আপনার কাছে গেলে সে রেগে যাচ্ছে বা সেই স্থান থেকে দূরে সরে যাচ্ছে তাহলে বুঝতে হবে মেয়েটি আপনাকে ভালোবাসতে আরম্ভ করেছে। 

এখন সেই যদি আপনার অফিসের স্টাফ হয় তাহলে লক্ষ্য করবেন টিফিনের সময় আপনার সঙ্গে খেতে বসার বা আপনার সঙ্গে খাবার ভাগ করে খেতে চাইছে যেটি আর কোনো স্টাফের সঙ্গে করছে না।

অফিস শেষে আপনার জন্য অপেক্ষা করছে বা আপনার সঙ্গে সময় কাটাতে চাইছে, তাহলে অবশই এটা ভালোবাসার লক্ষণ হতেই পারে। 

৩| লক্ষ করুন মেয়েটি আপনার সঙ্গে নিজে থেকে কথা বলছে কিনা :-

যদি দেখেন মেয়েটি আপনার সঙ্গে নিজে থেকে কথা বলছে তা সে মুখোমুখি হোক বা সোস্যাল মিডিয়াতে তাহলে বুঝতে হবে মেয়েটি আপনাকে কোননা কোনো ভাবে হলেও পছন্দ করছে। শুধু তাই নয় কথা বলার ধরন, প্রশ্নের ধরন এগুলোর দিকেও নজর দিতে হবে।

সে যখন সামনাসামনি আপনার সঙ্গে কথা বলে, তখন কি সে নরম ভাবে, কোমল স্বভাবে কথা বলে ? সোস্যাল মিডিয়াতে সে কি আপনার দৈনন্দিন খবরাখবর, বাড়ির লোকের কথা, আপনার শৈশবের কথা, আপনার ভালো লাগা, খারাপ লাগা নিয়ে প্রশ্ন করে ? মেয়েটি কি নিজের দৈনন্দিন ঘটনা, নিজের স্মৃতি আপনাকে কথা প্রসঙ্গে বলে থাকে ? আসলে মেয়েরা সব মানুষের সঙ্গে মন খুলে কথা বলে না।

বিশেষ বিশেষ মানুষদের সঙ্গেই তারা নিজেদের স্মৃতি বা দৈনন্দিন জীবনের ঘটনা ভাগ করে নেয়।

যদি কেউ আপনার সাথে এইরকম ভাবে কথা বলে থাকে তাহলে বুঝতেই হবে আপনি কারোর প্রাণপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

৪| মেয়েটি আপনার কাছাকাছি থাকতে চাইছে কিনা তা লক্ষ্য রাখতে পারেন :-

 যদি মেয়েটি নানা অজুহাতে  আপনার কাছাকাছি থাকতে চায় বা আপনার সঙ্গে সময় কাটাতে চায় তাহলে সে আপনার প্রতি আকৃষ্ট হয়েছে।

যদি কোনও মেয়ে কখনো  লাজুক ভঙ্গিতে কথা বলার উদ্দেশ্য নিয়ে আপনার কাছে আসে, এবং সে আপনার চোখে চোখ না রেখে নরম স্বভাবে মাথা নীচু করে কথা বলে তাহলে ধরেই নেবেন যে মেয়েটি আপনার প্রেমে পড়েছে কারন সে আপনাকে দেখে লজ্জা পাচ্ছে।

প্রেমের প্রথম দিকে এই লক্ষণ স্বাভাবিক। 

মেয়েটি সব সময় চাইবে আপনি যেন তাকে বাকিদের থেকে আলাদা করে দেখেন, সে আপনার বাকি কর্মী বা বন্ধু নয় সেটা বুঝিয়ে দেবার জন্য সে আপনার প্রতি কখনো কখনো একটু অধিকার বোধ ফলাবে।

সে যদি আপনার স্কুল বা কলেজের বান্ধবী হয়, তাহলে দেখবেন সে আপনার জন্য ক্লাসে বসার জায়গা রেখে দিয়েছে।

ক্যান্টিনে আপনার জন্য অপেক্ষা করছে। আপনার সঙ্গে বাড়ী ফিরতে চাইছে। আপনার বন্ধু মহলে পরিচিত হতে চাইছে।

এই জাতীয় কোনো লক্ষণ প্রকাশ পেলে নিজেকে প্রস্তুত করে নিন।

৫| যদি সে আপনার সামনে চুল নিয়ে খেলা করে :-

মেয়েরা নিজেদের চুল নিয়ে ভীষন রকম অবসেসড হয়। যদি দেখেন কোনো মেয়ে আপনার সামনে কথায় কথায় তার নিজের চুলে হাত বোলায় বা আপনাকে দেখিয়ে দেখিয়ে সে নিজের চুল ঠিক করে তাহলে বুঝতে হবে মেয়েটি আপনাকে সংকেত দিচ্ছে।

ধরা যাক আপনি আপনার কলেজের বন্ধু বান্ধবীদের সঙ্গে কথা বলছেন, আপনার যে বান্ধবীটি আপনাকে পছন্দ করে, দেখা গেল সে কখনো নিজের চুলে হাত দিয়ে চুল দোলাচ্ছে, কখনো বা চুলটিকে কানের পিছনে সরিয়ে দিচ্ছে, কখনো বা চুলের বাঁধন খুলে তা ঠিক করছে।

এই ধরণের বিষয় গুলো দেখা দিলে সেই মেয়েটি যে আপনার প্রেমে পড়েছে তা কিন্তু সত্যি।

৬| লক্ষ্য রাখুন মেয়েটি অকারণে আপনাকে ছুঁতে চাইছে কিনা :-

ভালোবাসার মানুষ হোক বা ভালোলাগার মানুষ, তাকে কাছে পেতে সবাই চায়, ছুঁতে চায়, স্পর্শ দিয়ে অনুভব করতে চায়।

যদি কোনো মেয়ে আপনার প্রেমে পড়ে তাহলে লক্ষ্য করে দেখবেন সে আপনার বাকী মহিলা কর্মী বা বান্ধবীর চেয়ে একটু বেশিই নিজের মোলে বলে করছেন এবং আপনাকে ছুঁতে চাইছে।

তা হতে পারে কারণে অকারণে আপনার গায়ে হাত দিচ্ছে, সাধারন ভাবে মনে হবে যেন ভুল বসত হাত লেগে গেছে বা অসাবধানতা বসত হয়েছে।  তারপর মিষ্টি হেসে আপনাকে সরিও বলছে।

কিন্তু সে চেষ্টা করছে আপনার স্পর্শ পেতে, আপনাকে ছুঁয়ে অনুভব করতে, কারণ সে মনে থেকে আপনাকে নিজের প্রিয় বলেই ভাবছেন। 

ধরা যাক আপনারা কলেজ থেকে বা অফিস থেকে দুজনে একসঙ্গে ফিরছেন।

পথে হয়তো কোনো একটা কুকুর তেড়ে এল, মেয়েটি এইরকম পরিস্থিতিতে আপনাকে জড়িয়ে ধরবে।

বা দুজনে হয়তো ভীড় বাসে উঠেছেন, অনুভব করলেন মেয়েটি আপনার হাত ধরেছে, এমন যদি হয় বা হলে আপনি দেরি না করে সরাসরি প্রস্তাব দিয়ে ফেলতে পারেন।

কারন হতে পারে এই অবস্থাতে মেয়েটি সম্পূর্ণ ভাবে আপনার প্রেমে ডুবে গিয়েছে।

অবশই পড়ুন: 

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা মেয়েদের প্রেমে পড়ার লক্ষণ গুলোর বিষয়ে কথা বললাম যেগুলোর মাধ্যমে বুঝা যেতে পারে যে সে আপনার প্রেমে পড়েছে কি না। 

মনে রাখবেন বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মেয়েরা যখন প্রেমে পরে তখন ওপরে বলা লক্ষণ গুলোই সবচেয়ে আগে দেখা যায়।

তবে, কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই ধরণের লক্ষণ গুলো প্রেমের কারণে নাও হতে পারে বলে আপনাকে বুঝতে হবে।

অনেক সময় একটি অনেক মনের কাছের ও প্রিয় বন্ধু ও সব সময় আপনার কাছে থাকার চেষ্টা করতেই পারে।

তাহলে আশা করছি, মেয়েরা প্রেমে পড়ার লক্ষণ গুলো আপনারা এই আর্টিকেলের মাধ্যমে বুঝতেই পেরেছেন।

আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানাবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top