ভালবাসার প্রথম উপহার কি হওয়া উচিত – (১১টি উপহারের আইডিয়া)

নিজের ভালোবাসার মানুষকে সবচেয়ে প্রথমে কি উপহার দিবেন ? ভালবাসার প্রথম উপহার কি হওয়া উচিত ? এই আর্টিকেলের মাধ্যমে জেনেনিন সেরা ১১টি উপহারের আইডিয়া বাংলাতে

ভালোবাসার মানুষের জন্য উপহার
মেয়েদের কি গিফট দিলে বেশি খুশি হয় ?

ভালোবাসতে কে না চায় ? কে না চায় তার ভালোবাসার মানুষকে জীবনের সেরা উপহারটা দিতে ?

কিন্তু এক্ষেত্রে আমাদের কাছে সব থেকে বড় সমস্যার বিষয় হয়ে থাকে, “ভালোবাসার মানুষের জন্য উপহার সিলেক্ট করাটা“. 

প্রিয়জন কে কি উপহার দিলে সে সব থেকে বেশি খুশি হবে, এই বিষয়ে ভাবতে ভাতেই শেষে মাথা নষ্ট হয়ে যায়।

আমরা সবাই এক্সসাইটেড থাকি আমাদের প্রিয়জনের কাছ থেকে সেরা গিফটটা পেতে।

ভালোবাসার নামে আমরা আকাশের চাঁদ এনে দেওয়া থেকে শুরু সাত সাগর পাড়ি দিয়ে মুক্ত খুঁজে আনার প্রমিস করে থাকি আমাদের ভালোবাসার মানুষের কাছে।

আসলে, ভালোবাসতে গেলে আর ভালোবাসার মানুষকে খুশি রাখতে গেলে ‘টোকেন অফ লাভ’ বা ভালোবাসার প্রতীকী বা গিফট দেওয়াটাও কিন্তু একান্ত জরুরি।

একটা উপহারের মাধ্যমে আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষকে স্পেশাল ফীল করাতে পারেন।

আর, তা যদি হয় আপনার ভালোবাসার মানুষের জন্য প্রথম উপহার, তাহলে তাকে স্বর্গীয় আনন্দ দেওয়ার কর্তব্য কিন্তু আপনারই!

যদি আপনার প্রিয় মানুষকে ভালোবাসার প্রথম উপহার কি দেবেন তা নিয়ে দ্বন্দে থাকেন, তবে এই আর্টিকেলটি আপনাদের প্রিয় উপহার বেছে নিতে সাহায্য করবে।

ভালবাসার প্রথম উপহার । ভালোবাসার মানুষের জন্য উপহার

আসুন, তবে জেনে নিই কিছু ক্লাসিক ও ইউনিক গিফট আইডিয়া সম্পর্কে:

১. ফ্লাওয়ার বুকে:

পৃথিবীতে ফুল ভালোবাসেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দায়।

চিরন্তনকাল ধরে প্রেমিক-প্রেমিকাকে ফুল দেওয়ার মতো রোমান্টিক জিনিস আর কিছু হতে পারে না।

তাই, ফুল প্রথম উপহার হিসেবে বেশ স্পেশাল ও ক্লাসিক। 

ফুল দেওয়া হল ভালোবাসার প্রতীক, তাই ভালোবাসার প্রকাশ করতে ফুলের বুকের থেকে ভালো অপসন আর কিছু হতেই পারে না।

ভালোবাসার রং লাল, তাই লাল গোলাপ বা লাল রঙের ফ্লাওয়ার বুকে উপহার দেওয়াটাই হল বেস্ট অপসন।

২. কাস্টোমাইজড গিফট প্যাক:

এখন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে, যারা আপনাকে আপনার পছন্দমতো গিফট প্যাক তৈরী করে দিতে পারে।

এইসব প্যাকেজে থাকে স্পেশাল লাক্সারি বাথিং কিট, এরোমাটিক ক্যান্ডেল, স্পেশাল চকলেট ও আরও অনেক কিছু।

এর মধ্যে থেকে আপনার প্রিয় মানুষটি যা পছন্দ করেন, সেই অনুযায়ী প্যাকেজ তৈরী করে তা উপহার হিসেবে দিতে পারেন।

কাস্টোমাইজড গিফট প্যাক হল এমন একটা উপহার, যা একজন মানুষের কাজে লাগবেই এবং তা ব্যবহার করার সময় আপনার কথা তার মনে পড়বেই যা তার মুখে হাসি ফুটিয়ে তুলবে।

৩. বই:

বই হল এমন একটা গিফট চয়েস, যা কোনোদিন পুরোনো হয় না।

আপনার ভালোবাসার মানুষটা যদি গল্প বা কবিতা পড়তে ভালোবাসেন, তবে অবশ্যই তাকে কোনো রোমান্টিক নভেল, কবিতার বই ও অন্যান্য বই গিফট করতে পারেন।

জ্ঞান হল পৃথিবীর সবথেকে শ্রেষ্ঠ উপহার, এই কারণেই যদি প্রথম উপহার হিসেবে আপনার ভালোবাসার মানুষকে বই উপহার দেন, তবে তার কাছে তা চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

সেরকম হলে বইয়ের পরিবর্তে একটা ডায়েরি আর পেন গিফট করতে পারেন।

৪. সারপ্রাইস টুর প্ল্যান:

আপনার প্রিয় মানুষ পাহাড়, সমুদ্র, জঙ্গল না কান্ট্রিসাইডে বেড়াতে ভলোবাসেন, সেটা আগে জেনে নিন।

এরপর, তার পছন্দমতো একটা একদিনের টুর বানিয়ে নিয়ে তাকে সারপ্রাইজ দিন।

নিজের প্রিয় মানুষকে সময় দেওয়ার চেয়ে ভালো উপহার আর কিছু হতে পারে না। 

তাই, সারাদিন সুন্দর করে আপনার প্রিয় মানুষের সাথে সময় কাটান।

লং ড্রাইভ বা দূরপাল্লার ট্রেন জার্নিও কিন্তু বেশ রোমান্টিক একটা উপহার

তবে, অবশ্যই আপনার পার্টনারের তা পছন্দ কিনা সেটা আপনাকে আগেই জেনে তারপর এই প্ল্যান তৈরি করা দরকার। 

৫. ঘড়ি:

সময় একটা অদ্ভুত জিনিস, এই আছে, এই নেই।

আপনার প্রিয় মানুষের সাথে কাটানো প্রতিটা মুহূর্ত যেমন স্মরণীয়, ঠিক তেমনই সেই মুহূর্ত গুলোর কথা তাকে স্মরণ করিয়ে দেওয়ার জন্যে ঘড়ির মতো ভালো উপহার আর কিছু হতে পারে না।

পুরুষ কিংবা নারী ঘড়ি কম-বেশি সকলেই কোনো না কোনো সময় ব্যবহার করেই থাকেন।

তাই, প্রথম উপহার হিসেবে ঘড়ি খুবই ভালো চয়েস।

৬. চিঠি:

এই হোয়াটস্যাপের জমানায় টেলিফোন তো দূরের কথা, চিঠির পাট তো চুকেই গেছে।

তবে চিঠি লেখা কিন্তু খুবই রোমান্টিক একটা ব্যাপার।

তাই, নিজের মনের ভাব ব্যক্ত করতে চিঠির সাহায্য নিন। 

ভালোবাসার প্রথম উপহার হিসেবে চিঠি দিতে পারেন নিজের প্রিয় মানুষটিকে।

আপনার ভালোবাসার মানুষটা আপনার নিজের হাতে লেখা মনের অনুভূতিগুলো পড়ে নিশ্চয়ই খুশি হবেন। 

৭. হ্যান্ডমেড গিফট:

নিজের ভালোবাসা ব্যক্ত করতে গেলে হাতে তৈরী উপহারের মতো সুন্দর জিনিস আর কিছু হতে পারে না।

সে গ্রিটিংস কার্ড হোক, এম্ব্রডারিড রুমাল বা ড্রেস, ওয়াল হ্যাঙ্গিং, কিংবা তা হোক কোনো শো-পিস, নিজের হাতে কোনো জিনিস তৈরি করতে গেলে তার মধ্যে যে ডেডিকেশন আর ভালোবাসা মিশে থাকে, তা অবশ্যই আপনার ভালোবাসার মানুষের মন ছুঁয়ে যাবে।

৮. চকলেট:

অনেক মানুষই চকলেট খেতে ভীষণ পছন্দ করেন।

তাই, আপনার ভালোবাসার মানুষটা যদি চকলেট-প্রেমী হয়, তবে একটা চকলেট গিফট প্যাক তার জন্যে হতে পারে ভালোবাসার সেরা উপহার।

৯. পারফিউম:

গন্ধ, ভালোবাসার ক্ষেত্রে বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটা ব্যাপার।

রোমান্টিক গিফট হিসেবে পারফিউম বা সেন্টের জুড়ি মেলা ভার।

তাই, প্রেমিক হোক বা প্রেমিকা পারফিউম সকলেই ব্যবহার করে থাকেন। 

যদি পারফিউমকে ভালোবাসার উপহার হিসেবে নির্বাচন করেন, তবে তা অবশ্যই আপনার ভালোবাসার মানুষের পছন্দ হবে।

সেই সুগন্ধির গন্ধ আপনার প্রিয় মানুষটি যখনই পাবেন, তখনই আপনার কথা তার মনে পড়বে।

তাই, ভালোবাসার ক্ষেত্রে পারফিউম এক দুর্দান্ত ভূমিকা পালন করে।

১০. ফটোফ্রেম:

এখন অনেক ধরণের কাস্টোমাইজেড ফটোফ্রেম পাওয়া যায় কিংবা ফটোফ্রেম আপনি নিজের হাতে বানাতেও পারেন। 

নিজেদের স্মরণীয় মুহূর্তগুলোকে ফ্রেম বন্দি করে আপনার প্রিয় মানুষকে উপহার দিলে তা তার কাছে অবশ্যই একটা স্মরণীয় উপহার হিসেবে থেকে যাবে। 

১১. সৌখিন উপহার:

সৌখিন উপহার পেতে সকলেই ভালোবাসেন। আর, অন্যরকম গিফট আইডিয়ার মধ্যে পড়ে এন্টিক গয়নার বাক্স, গয়না, আয়না, চিরুনি ও অন্যান্য।

আপনার প্রিয় মানুষটা যদি গ্যাজেট-এড্ডিক্ট হন, তবে অবশ্যই তাকে স্মার্ট ওয়াচ, MP3 player, ফোন কিংবা এই ধরণের ইলেকট্রনিক ডিভাইস গিফট করতে পারেন। 

এছাড়াও, আপনার প্রেমিকা মেকআপ করতে ভালোবাসলে মেকাপের জিনিসও তাদের উপহার হিসেবে দিতে পারেন।

ডিসাইনার ড্রেস, বেল্ট, পার্স, সানগ্লাস পেতেও অনেক মানুষ খুব পছন্দ করেন।

তাই, আপনার মানুষটা কোন জিনিসটা সবথেকে বেশি পছন্দ করেন, সেটা দেখে-শুনে তবেই গিফট নির্বাচন করুন।

আংটি, নেকলেস, ব্রেসলেটও কিন্তু ভালোবাসার উপহার হিসেবে বেশ একটা ক্লাসি সিলেকশন। 

সামনেই ১৪ই ফেব্রুয়ারি প্রেম দিবস বা ভ্যালেন্টাইন্স ডে আগত।

যদি, আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষকে এই উপহার গুলোর মধ্যে যেকোনো একটা দেন তবে অবশ্যই তা তাকে খুশি করবে।

তাই, ভালোবাসার উপহার চটপট বেছে নিয়ে আপনার প্রেমিক বা প্রেমিকাকে দিয়ে ফেলুন ভালোবাসা দিবসের দিন। 

আমাদের শেষ কথা,,

আমাদের আজকের ভালোবাসার উপহার নিয়ে লেখা আর্টিকেলটি এখানেই শেষ হল।

আইডিয়া গুলোর মধ্যে আপনার কোনটি সেরা লেগেছে সেটা অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

এছাড়া, যদি উপহারের তালিকা আপনাদের সত্যি ভালো লেগে থাকে, তাহলে অবশই আর্টিকেলটি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

আশা করছি, প্রিয়জনের জন্য সেরা উপহারের আইডিয়া গুলো অবশই আপনাদের পছন্দ হয়েছে।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top
Copy link