কিভাবে মেয়েদের প্রশংসা করতে হয় – (দারুন ৬ টি উপায়)

বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানবো, কিভাবে মেয়েদের প্রশংসা করতে হয় ? কিভাবে প্রশংসা করলে মেয়েরা অধিক খুশি হবেন ? এই প্রত্যেক বিষয়ে আপনারা জানতে পারবেন। 

প্রশংসা শুনতে কার না ভালো লাগে ? ছেলে-মেয়ে, বাচ্ছা থেকে বড়ো, সবাই নিজের প্রশংসা শুনতে ভালোবাসেন।

যেকোনো অচেনা মানুষেরও মন জয় করে নেওয়া যায়, প্রশংসা দিয়ে।

রূপের প্রশংসা, গুণের প্রশংসা, কাজের প্রশংসা, আরো কত রকমের প্রশংসা আছে।

অনেক সময় এই প্রশংসার মধ্যে দিয়ে কত সম্পর্ক তৈরি হয় তার ইয়্যতা নেই।

অফিসের বসের প্রশংসা, বাড়িতে স্ত্রীর প্রশংসা, কলেজে বান্ধবীর প্রশংসা, স্কুলে শিক্ষক-শিক্ষিকার প্রশংসা, আরো কত রকমের প্রশংসা আছে।

তবে প্রশংসার ভাষা এবং বলার ধরন তা ব্যক্তি এবং স্থানের সঙ্গে পাল্টে যায়।

আজকের আধুনিক যুগে মোবাইল ফোনের দৌলতে সোশ্যাল মিডিয়ার রমরমা।

হোয়াটস অ্যাপ, ফেসবুক, ইন্স্টাগ্রাম আরো নানা রকম অ্যাপ্লিকেশন আছে। প্রশংসা পদ্ধতিও বদলে গিয়েছে।

মুখে বলা বা কগজের চিরকুটের বদলে এখন এসেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রশংসা করার যুগ।

কিন্তু এত কিছুর মধ্যে কিভাবে একজন মহিলাকে প্রশংসা করা যায়, তা নিয়ে অনেকেই চিন্তিত।

তবে চিন্তার কোনো কারন নেই। যারা নিজেদের পছন্দের মহিলার প্রশংসা করেন বা করতে চান, আজকের লেখাটি তাদের জন্য।

লেখাটি অবশ্যই মন দিয়ে সম্পূর্ণ পড়বেন।

প্রশংসা করব কেন ?

১) মনে রাখতে হবে প্রশংসার মাধ্যমে যে সুসম্পর্ক তৈরি হয় তা আর অন্য কোনো ভাবে হয় না।

যেকোনো সম্পর্ক তৈরির মূলে হচ্ছে একে অপরকে কাছে আসা। প্রশংসা এই পথ খুব সহজে তেরি করে দেয়। 

মহিলাদের প্রশংসা করলে সহজেই তার সঙ্গে আপনার যোগাযোগ, কথোপকথন বা বন্ধুত্ব সম্ভব হবে। 

২) অন্যের মুখে নিজের প্রশংসা সবাই পছন্দ করে। বিশেষ করে মেয়েরা।

যিনি ভালো প্রশংসা করতে পারেন, মহিলারা তাকে বাকিদের থেকে আলাদা নজরে দেখেন।

একজন প্রশংসাকারী ব্যক্তি তাই খুব সহজেই বাকি দশজন সাধারন লোকের থেকে সহজেই আলাদা হয়ে যেতে পারেন। 

তাই সহজেই প্রশংসার মাধ্যমে একজন মহিলার দৃষ্টি আকর্ষণ করা যায়। 

৩) প্রশংসার মাধ্যমে সহজেই যেকোনো মানুষের মনোবল বৃদ্ধি করা যায়।

উদাহরন হিসাবে বলা যায়,  কেউ ভালো ছবি আঁকে, তার প্রশংসা করলে তার মনোবল বৃদ্ধি পাবে এবং ভবিষ্যতে সে কাজে আরো উৎসাহিত হবে। 

ঠিক তেমনি একজন মহিলার প্রশংসা করলে সে পরবর্তীতে আপনার সঙ্গে সে যোগাযোগ রক্ষা করতে চাইবে।

প্রশংসা করার সময় যে বিষয় গুলি খেয়াল রাখা প্রয়োজন

১) প্রথম বিষয়

মহিলাদের প্রশংসা করার জন্য একাধিক পদ্ধতি আছে। তবে প্রশংসা করার সময় মনে রাখতে হবে, প্রশংসা টি হবে অকৃত্তিম।

যদি কেউ মিথ্যা প্রশংসা করে তবে এমন ভাবেই প্রশংসাটি করতে হবে যাতে মনে হয় সত্যি সত্যিই প্রশংসা করা হচ্ছে।

কেউ যেন ধরে না ফেলে তা প্রশংসা নয় কেবল দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা। 

২) দ্বিতীয় বিষয়

প্রশংসাটি হবে সহজ সরল। খুব জটিল ভাষা বা কঠিন শব্দ ব্যবহার না করাই ভালো।

সহজ সরল কিন্তু আকর্ষনীয় এবং মার্জিত ভাষা দ্রুত মানুষের মনে প্রভাব বিস্তার করে।

একই কথা অনেক ভাবে বলা যায়।

যেমন কেউ বলে ঘাস, কেউ বলে তৃণ আবার কেউ বলে ব্রততী।

প্রশংসার সময় সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হল নিজের মনের ভাব স্বচ্ছন্দে প্রকাশ করতে পারা।

কখনো কখনো কবিদের কবিতা বা ছড়া দিয়েও প্রশংসা করা যায়। 

একটি উদাহরণ দিয়ে বলাই যায়, কোনো মেয়ের ঘন কালো চুলের, কেউ প্রশংসা করতে চাইছে,

সে বলল ” আহা! আপনার চুলগুলি খুব সুন্দর” এভাবে না বলে যদি বলা হত, “জীবনানন্দ দাশ আপনার জন্যই লিখেছিলেন চুল তার কবে কার অন্ধকার বিদিশার নিশা, সত্যি আপনার এই আলুলায়িত কেশ, আমার সমস্ত স্বত্তায় ঢেউ জাগিয়ে দিল।” 

বোঝাই যাচ্ছে প্রথম বাক্যের থেকে দ্বিতীয় বাক্যটি অনেক সুমধুর। এখানে একটি কবিতার লাইনও ব্যবহার করা হয়েছে। 

তাই প্রশংসার সময়, শব্দচয়ন, বাক্যের বহিঃপ্রকাশ, এই গুলির দিকে যথাযথ নজর দিতে হয়। 

৩) তৃতীয় বিষয়

প্রশংসা করার সময়, যার প্রশংসা করছেন তার চোখে চোখ রেখে প্রশংসাটি করা উচিত।

এতে তিনি খুশী হবেন আর আপনার প্রতি আকৃষ্ট হবেন। 

প্রশংসা করার সময় নিজের দৃঢ়তা বজায় রেখে তা প্রকাশ করা উচিত।

কখনোই দুর্বল আচরণ করা উচিত নয়। মনে রাখতে হবে, কী বলা হচ্ছে, কীভাবে বলা হচ্ছে, দুটি গুরুত্বপূর্ণ।

খুব সুন্দর কথা, যদি সুন্দর ভাবে না পরিবেশন করা হয়, তাহলে তা ভালো শোনায় না।

প্রশংসা করার সময়, ধীরে ধীরে তা বলা উচিত। কখনোই খুব দ্রুত বলা উচিত নয়।

এতে যিনি তা শুনছেন, তিনি যেন প্রতিটা শব্দ শুনতে এবং বুঝতে পারেন, যে তায় উদ্দ্যেশ্যে কি বলা হচ্ছে।

কথা বলার সময় ধীরে ধীরে, সুন্দর ভাবে  পরিবেশন করলে তা মনগ্রাহী হয়।

কিভাবে মেয়েদের প্রশংসা করতে হয় ?

প্রশংসা করার আগে আপনাকে কয়েকটি জিনিস খেয়াল রাখতে হবে।

তাহলেই আপনি যেকোনো পরিস্থিতিতেই যেকোনো মহিলার প্রশংসা করতে পারবেন।

প্রথমেই যে বিষয়টির দিকে লক্ষ্য দিতে হবে তা হল, একটি মহিলার কোন কোন দিক গুলির আপনি প্রশংসা করবেন ? এইটি জানা থাকলেই প্রশংসা করতে যেমন সুবিধা হবে, তেমনি সেই দিকটিকে সুন্দর করে ফুটিয়ে তোলা যাবে। 

১)  যার প্রশংসা করতে চাইছেন তাকে মূল্যায়ন করা

 যে মেয়েটির প্রশংসা আপনি করতে চাইছেন তার নিজের মধ্যে যা মূল্যবান তা প্রথমে মূল্যায়ন করুন। 

প্রথম কাজ হল মেয়েটির সম্পর্কে চিন্তা করা এবং তার গুন গুলি নিয়ে ভাবা। 

আপনি তার যে গুন গুলির প্রশংসা করবেন এবং মেয়েটি যদি আপনার সাথে সম্মত হয় তবে আপনার প্রশংসা গ্রহণ করতে সে আরও বেশি আগ্রহী হবে।

আপনি তার সাথে যে অভিজ্ঞতা ভাগ করে নেবেন এবং সেই বিষয়গুলিতে তার প্রশংসা করছেন সে সম্পর্কে তিনি কী গর্বিত তা লক্ষ করুন।

২) ব্যক্তিত্বের  প্রশংসা

যে কোনো মেয়ের কেবল রূপের প্রশংসা করলেই চলে না, সাথে তার ব্যক্তিত্বের  প্রশংসা করতে হয়।

কোনও মেয়ের প্রশংসা করার সর্বোত্তম জিনিস হ’ল তার ব্যক্তিত্ব।

তবে খেয়াল রাখতে হবে ব্যক্তিত্বের প্রশংসার সময় তা নির্দিষ্ট পরিমাণে নিয়ন্ত্রণ করে বলা যেতে পারে।

একজন ব্যক্তি হিসাবে তার সম্পর্কে আপনি কী ভাবেন, তার কী কী পছন্দ করেন সে সম্পর্কে চিন্তাভাবনা করতে পারেন এবং এই বৈশিষ্ট্যগুলি নিয়ে তার প্রশংসা করতে পারেন।

৩) কৃতিত্বের প্রশংসা

ব্যক্তিগত প্রশংসার সাথে সাথেই আপনি যার প্রশংসা করতে চাইছেন, তার কৃতিত্বের প্রশংসা করতে পারেন।

তবে কৃতিত্বের প্রশংসার সময় খেয়াল রেখে নিয়ন্ত্রণ করে প্রকাশ করতে পারেন। 

তিনি যে বিষয়গুলির জন্য কঠোর পরিশ্রম করেন বা কী কী কাজ করেন সে সম্পর্কে আপনি চিন্তা করুন। 

ধরা যাক মেয়েটি খুব ভালো গান করে, এটি তার কৃতিত্ব তাহলে আপনাকে প্রশংসা করার সময়, তার গানের গলা, গান করার ধরন, সংগীত পরিবেশনের ধরন, ভবিষ্যতে তার আরো সম্মান এবং প্রতিপত্তি বৃদ্ধি হয় এই সব বিষয়ে প্রশংসা করতে হবে।  

আবার যদি তিনি কোনো সমাজবন্ধু হন তাহলে তার আদর্শ, তার সহায়তা করার ধরন, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর যে চিন্তাভাবনা, সেই চিন্তাভাবনা কে সম্মান, তাকে প্রশংসার সাথে সাথেই সাধারন কিছু অ্যাডভাইস, ভবিষ্যতে আপনার পাশে দাঁড়ানোর চিন্তাভাবনা  এই সব বিষয় গুলি নিয়ে প্রশংসা করতে পারেন।

৪) রূপের প্রশংসা

যেকোনো মেয়ে তার রূপের প্রশংসা শুনতে পছন্দ করে, তাকে খারাপ দেখতে হোক বা ভালো দেখতে হোক।

তাই রূপের প্রশংসা একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

এই প্রশংসা করার সময়, আপনাকে অনেক গুলি দিক লক্ষ্য রাখতে হবে।

হয়তো আপনি যার প্রশংসা করছেন, তিনি নিজের নাকটিকে পছন্দ করেননা, তখন আপনাকে এমন ভাবেই প্রশংসাটি করতে হবে যাতে তিনি নিজের খুঁত গুলিকেও পছন্দ করতে শুরু করেন।

এই বিষয়ে প্রশংসা করার সময় আপনি বিভিন্ন উপমার ব্যবহার করতে পারেন, কবিতার কোনো লাইন বলতে পারেন, তাকে বিভিন্ন সুন্দর বস্তুর সঙ্গে তুলনা করতে পারেন। 

আপনি যার প্রশংসা করতে চাইছেন, সত্যি তাকে দেখতে ভালো, আপনি তার সঙ্গে স্বর্গের পরীদের তুলনা করতে পারেন।

তার ঠোট দুটি খুব সুন্দর, আপনি তার ঠোঁটের সঙ্গে গোলাপের পাপড়ির তুলনা করতে পারেন। ইত্যাদি।

৫) হৃদয়ের প্রশংসা

যেকোনো মেয়ের মনের বা হৃদয়ের প্রশংসা করলে, তারা তা শুনতে পছন্দ করে।

তাই প্রশংসার সময় তার হৃদয় বা মনের প্রশংসা করতে ভুলবেন না।

আপনি তার কোনো কাজের জন্য বলতেই পারেন, ” আপনি বড়ো মনের মানুষ তাই এই কাজটি করতে পারলেন, আমি হলে পারতাম না”

এই জাতীয় প্রশংসা যেকোনো মেয়েই পছন্দ করবে।

তবে আপনি যদি সত্যিই প্রশংসা করার সময় তা এমন ভাবেই করেন, যেন মেয়েটি তা হৃদয় দিয়ে অনুভব করতে পারে, তাহলে বুঝতে হবে, আপনার প্রশংসা সার্থক।

৬) পরিবারের প্রশংসা

যেকোনো মেয়েই তার পরিবারের লোকজনের প্রশংসার শুনতে পছন্দ করে।

আপনি যদি তার বাবা, মা, ভাই বা বোনের সাথে পূর্বপরিচিত হন, তাহলে ওই মেয়ের সাথে তার পরিবারের লোকজনদের প্রশংসা করতে পারেন।

এতে তারা সহজে আকৃষ্ট হয়। 

আমাদের শেষ কথা,,

তবে সবসময় যে আপনার প্রশংসা কার্যকরী হবে এমনটা বলা যায় না, কোনো পরিস্থিতিতে, কোন ধরনের মানুষের প্রশংসা করা হচ্ছে তা গুরুত্বপূর্ণ তাই প্রথমেই  তার মূল্যায়ন করে নিন, তিনি কি প্রকৃতির মানুষ তারপর তার প্রশংসা আরম্ভ করুন।

হৃদয় বা মনের প্রশংসা করার সময় তার বর্তমান পরিস্থিতি লক্ষ্য রেখে প্রশংসা করবেন।

হয়তো আপনি সত্যিই মন থেকে তার প্রশংসার করছেন কিন্তু সেই সময় তিনি প্রশংসা শুনতে চাইছেন না, তখন আপনি যদি তার প্রশংসা আরম্ভ করেন, তাহলে হয়তো তিনি বিরক্ত বোধ করবেন।

তাই প্রশংসা করার সময় যে মানুষটির প্রশংসা করছেন, তার মনের পরিস্থিতি, বর্তমান পরিস্থিতি এই সব দিকে একটু খেয়াল রাখতে হবে।

কিভাবে মেয়েদের প্রশংসা করতে হয় বা মেয়েদের প্রশংসা করার উপায় গুলো নিয়ে লিখা আজকের আমাদের আর্টিকেল যদি আপনাদের পছন্দ হয়ে থাকে, তাহলে অবশই আর্টিকেলটি শেয়ার করবেন।

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানিয়ে দিবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top
Copy link